×
  • ঢাকা
  • সোমবার, ১৭ মে, ২০২১, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

রাজশাহীতে ঝড়ের রাতে ঘরে ঢুকে গৃহবধূকে দলবেঁধে ধর্ষণ


একটিভ নিউজ প্রকাশিত: মে ৪, ২০২১, ০৯:৪৩ পিএম রাজশাহীতে ঝড়ের রাতে ঘরে ঢুকে গৃহবধূকে দলবেঁধে ধর্ষণ
প্রতীকী ছবি

রাজশাহীর বাঘা উপজেলায় ঝড়ের রাতে ঘরের দরজা ভেঙে প্রবেশ করে এক গৃহবধূকে দলবেঁধে ধর্ষণের ঘটনায় মূল অভিযুক্ত সুরুজ মালিথাকে (৩৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

আজ মঙ্গলবার (৪ মে) সকালে তাকে গ্রেফতার করা হয়। 

এর আগে ভুক্তভোগী ওই নারীর স্বামী ধান কাটতে যাওয়ায় সুযোগ নিয়ে সোমবার (৩ মে) দিনগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার কলিগ্রামে এ ঘটনা ঘটায় অভিযুক্তরা। ঘটনার সময় ভুক্তভোগীর গলায় ধারালো অস্ত্র ঠেকিয়ে রাখা হয় যাতে ওই গৃহবধূ চিৎকার না করতে পারে।

আরো পড়ুন: রিকশাচালককে নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল, নির্যাতনকারী আটক

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী গৃহবধূ বাদী হয়ে মঙ্গলবার তিনজনকে আসামি করে বাঘা থানায় ধর্ষণের মামলা দায়ের করলে মূল অভিযুক্তকে আটক করেছে পুলিশ।

নির্যাতিতা ওই গৃহবধূর বরাত দিয়ে রাজশাহীর বাঘা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম এ ঘটনার বিষয়ে জানান, উপজেলার কলিগ্রামের এক দিনমজুর গত ২৯ এপ্রিল ধানকাটার কাজে নাটোর যান। ওই সময় থেকে তার স্ত্রী বাড়িতে একাই থাকতেন। এ সুযোগে গ্রামের এলু মালিথার ছেলে ঝুন্টু মালিথা (৩৫), রুবান মালিথার ছেলে সুরুজ মালিথা (৩৬) ও গুলমাল প্রামাণিকের ছেলে রুজদার (৪২) ওই গৃহবধূকে পালাক্রমে ধর্ষণ করেছে। সোমবার রাতে ঝড় শুরু হলে তারা ওই গৃহবধূর ঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে। এরপর তার ওই গৃহবধূর গলায় ধারালো অস্ত্র ঠেকিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

আরো পড়ুন: প্রকাশ্যে গুলি করে কওমী মাদরাসার মুহতামিমকে হত্যা

নজরুল ইসলাম আরো জানান, ঘটনার পরদিন মঙ্গলবার সকালে গৃহবধূ বাদী হয়ে বাঘা থানায় ধর্ষণের মামলা দায়ের করলে পুলিশ কলিগ্রাম থেকে সুরুজ মালিথাকে গ্রেফতার করে। মামলার অন্য দুই আসামিকে গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে। 

ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ওই গৃহবধূকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার (ওসিসিতে) পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

রেজাউল করিম / একটিভ নিউজ