×
  • ঢাকা
  • শনিবার, ১২ জুন, ২০২১, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮
Active News 24

২৫ বছর আগে মারা যাওয়া ব্যক্তির নামে মাদক মামলা


একটিভ নিউজ প্রকাশিত: মে ৯, ২০২১, ০৪:২৬ পিএম ২৫ বছর আগে মারা যাওয়া ব্যক্তির নামে মাদক মামলা
সংগৃহীত

চুয়াডাঙ্গার উপজেলার আকন্দবাড়িয়া গ্রামে ২৫ বছর আগে মারা যাওয়া ব্যক্তিকে পলাতক আসামি দেখিয়ে একটি মাদক মামলা দায়ের করেছে বিজিবি।

মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেন রবিবার (৯ মে) সকালে দর্শনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহাবুব রহমান কাজল।

মারা যাওয়া ওই ব্যক্তি শরিফ উদ্দীন। পারিবারিক কলহের কারণে ২৫ বছর আগে তিনি বিষ খেয়ে ‘আত্মহত্যা’ করেছিলেন।

সদর উপজেলার গাইদঘাট গ্রামে শরিফ উদ্দিনের বাড়ি। তিনি স্ত্রী, সন্তানসহ আকন্দবাড়িয়া গ্রামে থাকতেন।

আরো পড়ুন: চাচীর পরকীয়ার কথা জেনে যাওয়ায় ভাতিজাকে খুন
মামলার এজাহারে বলা হয়েছে যে, গত ৩০ এপ্রিল রাত ১১টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আকন্দবাড়িয়া গ্রামে মাদকবিরোধী অভিযান যায় বিজিবি উথলী ক্যাম্পের নায়েক সুবেদার নুরুল হক। এ সময় ছয় বোতল ফেনসিডিলসহ আটক করা হয় শরিফ উদ্দীনের স্ত্রী বিলু বেগম, ছেলে উজ্জল মিয়া ও রমজানের ছেলে নিজাম উদ্দিনকে।
 
পরদিন ১ মে তাদের দর্শনা থানায় হস্তান্তর করে মাদক মামলা করেন দর্শনার নিমতলা বিজিবি ক্যাম্পের নায়েব সুবেদার নুরুল হক। এই মামলায় পলাতক আসামি দেখানো হয় আকন্দবাড়িয়া গ্রামের আকাশ আলী, বাতাস আলী, মো. বিপুল, মো. লিটন, সবুরা বেগম ও শরিফ উদ্দিনকে।

ওইদিন বিকেলে মামলাটি তদন্ত করতে গিয়ে দর্শনা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) হারুন অর রশিদ দেখেন, মামলার এক পলাতক আসামি শরিফ উদ্দীন অনেক আগেই মারা গেছেন।

আরো পড়ুন: টিকটকে আপত্তিকর ছবি দেয়ায় স্ত্রীকে খুন করল স্বামী

শরিফের শ্যালক নিজাম উদ্দিন সংবাদ মাধ্যমকে জানান, শরিফ কৃষিকাজ করতেন। পারিবারিক কলহের জেরে ২৫ বছর আগে তিনি বিষ খেয়ে ‘আত্মহত্যা’ করেন। অথচ বিজিবি তার নামে মামলা করেছে।

মামলার বাদী বর্তমানে দর্শনার নিমতলা বিজিবি ক্যাম্পের নায়েব সুবেদার নুরুল হক এ বিষয়ে সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, “আটক আসামিদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী মামলাটি করা হয়েছে। শরিফ উদ্দিন যে মারা গেছে আমি তা জানতাম না। গ্রেপ্তার আসামিদের কাছ থেকে পলাতক আসামিদের তথ্য নেওয়া হয়েছিল। সেই তথ্যের ভিত্তিতে মামলা করা হয়েছে।” 

সাইফুল বারী / একটিভ নিউজ