×
  • ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৮ আশ্বিন ১৪২৮
Active News 24

তেঁতুলিয়ায় বিনামূল্যে অক্সিজেন সিলিন্ডার প্রদান


খাদেমুল ইসলাম | তেঁতুলিয়া (পঞ্চগড়) প্রতিনিধি প্রকাশিত: জুলাই ১৫, ২০২১, ০৭:০৩ পিএম তেঁতুলিয়ায় বিনামূল্যে অক্সিজেন সিলিন্ডার প্রদান

পঞ্চগড় জেলা তেতুলিয়া উপজেলায় করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে অস্বাভাবিক প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ায় অক্সিজেন সংকট নিরসনে অক্সিজেন সিলিন্ডার সেট প্রদান করেন বিনামূল্যে সেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন শিশুস্বর্গ। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের কক্ষে দর্জিপাড়া শিশু স্বর্গের ফাউন্ডেশন এবং এভারেস্ট ফার্মাসিউটিক্যালসের উদ্যোগে করোনা আক্রান্ত রোগীদের সাপোর্ট দিতে এ উপজেলা তেঁতুলিয়ায় প্রথম পাঁচটি অক্সিজেন সিলিন্ডার বিনামূল্যে প্রদান করে প্রতিষ্ঠানটি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান কাজী মাহমুদুর রহমান ডাবলু, নির্বাহী অফিসার সোহাগ চন্দ্র সাহা, শিশুস্বর্গের প্রতিষ্ঠাতা কবীর আকন্দসহ জার্নালস্ট ক্লাবের সাংবাদিকবৃন্দ।

আরো পড়ুন: টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটের আইসিইউ ওয়ার্ডে আগুন

তেঁতুলিয়া উপজেলায় করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর জরুরী ভিত্তিতে অক্সিজেনের প্রয়োজন হলে তা বিনামূল্যে সাঈদ ফার্মেসী ও রাজনের ফার্মেসী সাপোর্ট দিবেন।

শিশুস্বর্গের প্রতিষ্ঠাতা সমাজ কর্মী কবীর আকন্দ বলেন, এভারেস্ট ফার্মাসিউটিক্যালসের ম্যানেজিং ডিরেক্টর জনাব জাকির হোসেন শিশুস্বর্গ ফাউন্ডেশনের একজন অন্যতম উপদেষ্টা। তিনি তেতুলিয়ার জনগণের প্রাণঘাতি করোনার ভয়াল থাবা মোকাবেলা করার জন্যে পাঁচটি অক্সিজেন সিলিন্ডার উপহার হিসেবে পাঠিয়েছেন। যা সম্পুর্ন বিনা মূল্যে যে কোনো পরিস্থিতিতে করোনা রোগীরা জরুরী প্রয়োজনে ফার্মেসী দুটি থেকে দ্রুত সাপোর্ট নিতে পাবেন। এরপরেও যদি অক্সিজেন প্রয়োজন হয়, তাও ব্যবস্থা করা হবে মর্মে আশ্বাস দেন। এই হটলাইন নাম্বারে যোগাযোগ করতে অনুরোধ করা হলো- রাজন ফার্মেসী +৮৮০১৭২২২৮৯৫৫৫, সাঈদ ফার্মেসী +৮৮০১৭৯২৯৭৯০৮৯ ও মিজানুর রহমান মিন্টু +৮৮০১৭৮৮২৩৪৯০৬।

আরো পড়ুন: বরযাত্রীতে যাওয়ার পথে প্রাণ গেল স্বামী-স্ত্রীর

উপজেলা চেয়ারম্যান কাজী মাহমুদুর রহমান ডাবলু বলেন, করোনার ভয়াল থাবার ক্রান্তিকালে শিশুস্বর্গ ও এভারেস্ট ফার্মার তেঁতুলিয়ার সীমান্তবর্তী দেড় লাখ জনগোষ্ঠীর সংক্রমণ প্রতিরোধ কল্পে পাঁচটি অক্সিজেন সিলিন্ডার বিনামূল্যে প্রদান করে বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। আমি প্রত্যাশা করি দেশের সরকারের পাশাপাশি সমাজের বিত্তশালী, দানবীর ব্যক্তিরা যাতে এরকম মহৎ কাজে এগিয়ে আসেন। 

উল্লেখ্য যে, সীমান্তবর্তী এ উপজেলায় প্রতিনিয়ত বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। গত কয়েক সপ্তাহ করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন অনেক।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, এ উপজেলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২৪৩ জন, মৃত্যু ৬ জন, নমুনা পরীক্ষা ১০০৬ জন, ফলাফল ৯০২ জন, আইসোলেশনে রয়েছের ১২৮ জন।

ইউসুফ / একটিভ নিউজ