ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ মাঘ ১৪২৭, ১৯ জানুয়ারী, ২০২১

Facebook Twitter Youtube

Logo

সাতক্ষীরার তালায় পান চাষিদের প্রতিযোগিতা

দেশে বর্তমান সময়ে পান চাষ খুব লাভজনক একটি ফসল তাই পান চাষে আগ্রহী হয়ে গেছে কৃষকেরা, পান চাষীরা রাতারাতি ফিরে পাচ্ছে পারিবারিক স্বচলতা।    পান চাষ ব্যাপক লাভজনক একটি ফসল, সাতক্ষীরার তালা উপজেলার কৃষকরা  এবার পান চাষে ঝুঁকছে ,কৃষকরা যেন প্রতিযোগিতা পূর্বক পান চাষ শুরু করেছেন অনান্য বারের তুলনায় বেশি জমিতে পান চাষ

মোঃ লিটন হুসাইনঃ জেলা প্রতিনিধি সাতক্ষীরা
প্রকাশিত: বুধবার, ০২ ডিসেম্বর, ২০২০, ০৭:২৬
পান_গাছ
পান চাষ

দেশে বর্তমান সময়ে পান চাষ খুব লাভজনক একটি ফসল তাই পান চাষে আগ্রহী হয়ে গেছে কৃষকেরা, পান চাষীরা রাতারাতি ফিরে পাচ্ছে পারিবারিক স্বচলতা। 

 

পান চাষ ব্যাপক লাভজনক একটি ফসল, সাতক্ষীরার তালা উপজেলার কৃষকরা 

এবার পান চাষে ঝুঁকছে ,কৃষকরা যেন প্রতিযোগিতা পূর্বক পান চাষ শুরু করেছেন অনান্য বারের তুলনায় বেশি জমিতে পান চাষ করতে দেখা যাচ্ছে পানচাষীদের।

কৃষি ফসলের মধ্যে আদিম ফসলের একটি যা হলো পান, কবে, কোথায়, কখন, কিভাবে এই ফসলের উৎপত্তি তার কোন সঠিক তথ্য নিশ্চিত করা সম্ভব হয়নি।সবাই বলে বাপ ঠাকুর দা পান চাষ করেছে তাই আমরা পান চাষ করি।দেশে এমন কোন এলাকা নেই যেখানে পানেরক্রেতা বিক্রেত নেই।

 

এক সময় শুধু বারুই সম্প্রদায়ের মানুষেরা পান চাষ ও ব্যবসার সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকলেও বর্তমানে অন্য সম্প্রদায়ের কৃষকরা অনেক বেশি আগ্রহী পান চাষের প্রতি। বিশেষ করে মুসলিম সম্প্রদায়ের কৃষকরা অনেক বেশি আগ্রহী হয়ে উঠছে পান চাষের প্রতি।

পান প্রাচীনতম একটি সংষ্কার, সারা দেশের তুলনায় সাতক্ষীরায় বহু শতাব্দী ধরে ঐতিহ্যগতভাবে সামাজিক রীতি, ভদ্রতা এবং আচার-আচরণের অংশ হিসেবেই পানের ব্যবহার চলে আসছে। অনুষ্ঠানাদিতে পান পরিবেশন দ্বারা প্রস্থানের সময় ইঙ্গিত করা হয়। এক সময় উৎসব, পূজা ও পুণ্যাহে পান ছিল অবিচ্ছেদ্য অংশ। প্রাচীন অভিজাত জনগোষ্ঠীর মাঝে পান তৈরি এবং তা সুন্দরভাবে পানদানিতে সাজানো লোকজ শিল্প হিসেবে স্বীকৃতি পেত।

 

তালা উপজেলার বিভিন্ন এলাকার পান চাষীদের কাছ থেকে জানা গেছে

 পান চাষের জন্য যেমন বিশেষ ধরনের জমির প্রয়োজন তেমনি প্রচুর যত্নেরও দরকার হয়। পানচাষের জন্য নির্বাচিত জমি সাধারণত একটু উঁচু, মাটির ধরন শক্ত এবং জলাশয় ও পুকুর ইত্যাদির ধারেকাছে হওয়া বাঞ্ছনীয়। পানের বাগানকে বলা হয় বরজ এবং একটি বরজের আয়তন সাধারণত বারো থেকে কুড়ি শতাংশের মধ্যে সীমিত থাকে, কিন্তু বর্তমানে পাঁচ,দশ শতাংশের মধ্যেপানের বরজ তৈরি হয়, পানের বরজ তৈরির জন্য পাশের কোন জমি থেকে মাটি কেটে বরজের স্থানে ফেলে জায়গাটিকে উঁচু করে নিতে হয়।

বরজে সরিষার খৈল ও গোবরকে সার হিসেবে ব্যবহার কর হয় এবং বর্তমানে প্রচলিত জৈবসারের সাথে রাসায়নিক সারও ব্যবহূত হচ্ছে। চাষের উপযোগী করে জমিকে তৈরি করার পর মে ও জুন মাসে পানের লতা রোপণ করা হয়। মাঝখানে দুই ফুট দূরত্ব রেখে চারাগুলি সমান্তরাল লাইনে রোপণ করে ,বাঁশের শলা বা খুঁটি পুঁতে তার সাথে পানের লতাগুলি জড়িয়ে দেওয়া হয়।

 

রোদ এবং গরু-ছাগলের হাত থেকে রক্ষা করার জন্য বরজের চারদিকে ৫/৬ ফুট উঁচু করে বাঁশের শলা ও খুঁটি দিয়ে বেড়া এবং একই সামগ্রী দিয়ে উপরে মাচান তৈরি করা হয়। শুকনা মৌসুমে পান গাছে নিয়মিত পানি সেচের ব্যবস্থা করতে হয়। চারা রোপণের এক বছর পর পান আহরণের উপযোগী হয় এবং বরজ তৈরির পর কয়েক বছর পর্যন্ত তা থেকে উৎপাদন অব্যাহত থাকে।

 

সাধারণত বছরে পানের তিনটি ফলন হয় এবং যে মাসে পান আহরণ করা হয়, স্থানীয়ভাবে সে মাসের নামানুসারে এসব মৌসুমের নামকরণ হয়ে থাকে।

তবে সাধারণত কার্তিক, ফাল্গুন এবং আষাঢ় মাসে পান আহরণ করা হয়। বলা হয়ে থাকে কার্তিকের পান আষাঢ়ের পানের চেয়ে সুস্বাদু। পান গাছে কমপক্ষে ষোলটি পান রেখে বাকি পান পাতা আহরণের নিয়ম। পাতার আকার, কোমলতা, ঝাঁজ, সুগন্ধ ইত্যাদির বিচারে বহু ধরনের পান রয়েছে। যেমন- তামাক (তামবুকা) পান যা তামাক ও মসলা বা জর্দা যুক্ত, সুপারি (সাদা) পান, মিষ্টি (মিঠা) পান, সাঁচি পান প্রভৃতি। পান সাধারণত ২০ গুন্টায় এক পন ধরা হয়, সাধারণত ২০ টাকা থেকে শুরু করে ১৫০টাকা পর্যন্ত পানের পণ বিক্রি হয়। 

 

বর্তমানে সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলায় পানচাষ বৃদ্ধির কারণে, প্রতিদিন এই উপজেলা থেকে ঢাকা চট্টগ্রাম রাজশাহী, সহ দেশের বিভিন্ন বিভাগে পান সরবরাহ করা হয়, এই উপজেলা দুইটা থানায় বিভক্ত, যার একটি তালা অন্যটি পাটকেলঘাট,তালার তুলনায় পাটকেলঘাটায় পানচাষী অনেক বেশি সেজন্য পাটকেলঘাটা কুমিরা বাস স্ট্যান্ডসকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত পানের জমজমাট হাট বসে, এলাকার পাইকারি এবং খুচরা ক্রেতারা এখান থেকে পান সংগ্রহ করে।

তালায় একজন সফল পান চাষী মোঃ ইন্তাজ আলী বলেন আমি ৮ শতক জমিতে পান চাষ করেছি, পান প্রায় কাটার মত হয়েছে, চাষ করতে প্রায় ১লক্ষ টাকা খরচ হয়েছে, পানের বাজার দর স্বাভাবিক অবস্থায় থাকলে আমি প্রায় ২লক্ষটাকার মতো পান বিক্রি করতে পারবো ইনশাআল্লাহ।



একটিভ নিউজ / ইসমা
×
সারাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

দেশে বর্তমান সময়ে পান চাষ খুব লাভজনক একটি ফসল তাই পান চাষে আগ্রহী হয়ে গেছে কৃষকেরা, পান চাষীরা রাতারাতি ফিরে পাচ্ছে পারিবারিক স্বচলতা।    পান চাষ ব্যাপক লাভজনক একটি ফসল, সাতক্ষীরার তালা উপজেলার কৃষকরা  এবার পান চাষে ঝুঁকছে ,কৃষকরা যেন প্রতিযোগিতা পূর্বক পান চাষ শুরু করেছেন অনান্য বারের তুলনায়

Active News logo
    Active news app

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ আজিজুর রহমান
সহ-সম্পাদক: বি, এম বাবলুর রহমান
উপদেষ্টা: এ‍্যাডভোকেট আসাদুজ্জামান, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট
উপদেষ্টা: জাহাঙ্গীর আকন্দ
প‍্যারামাউন্ট হাইটস, পল্টন, ঢাকা-১০০০।
টেলিফোন: ০২-৪৮৯৫৭৯৬৭
মোবাইল: ০১৭১৬-৪৬৫৬১৬
ইমেইল: activenewsoffice@gmail.com