ঢাকা, রবিবার, ৪ মাঘ ১৪২৭, ১৭ জানুয়ারী, ২০২১

Facebook Twitter Youtube

Logo

‘মিনিকেট জাতের কোনো ধান-চাল নেই’

জামালপুর সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মোহাম্মদ সাখাওয়াত ইকরাম বলেন, বাংলাদেশে মিনিকেট জাতের কোনো ধানও নেই, চালও নেই। বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট আজ পর্যন্ত এই জাতের কোনো ধান উদ্ভাবনও করেনি। প্রতিবেশী দেশ ভারতেও মিনিকেট জাতের কোনো ধান নেই।  জামালপুর সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আজ বুধবার দুপুরে বাংলাদেশে

ডেস্ক: একটিভ নিউজ
প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ২৪ ডিসেম্বর, ২০২০, ১২:৪২
‘মিনিকেট জাতের কোনো ধান-চাল নেই’
চাল

জামালপুর সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মোহাম্মদ সাখাওয়াত ইকরাম বলেন, বাংলাদেশে মিনিকেট জাতের কোনো ধানও নেই, চালও নেই। বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট আজ পর্যন্ত এই জাতের কোনো ধান উদ্ভাবনও করেনি। প্রতিবেশী দেশ ভারতেও মিনিকেট জাতের কোনো ধান নেই। 

জামালপুর সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আজ বুধবার দুপুরে বাংলাদেশে জিঙ্কসমৃদ্ধ বিভিন্ন জাতের ব্রি-ধান, গম, মসুর ডালের চাষাবাদ বৃদ্ধি এবং সরকারি ক্রয় ও বিতরণ ব্যবস্থায় অন্তর্ভুক্তিকরণ বিষয়ে এক কর্মশালায় তিনি এসব তথ্য তুলে ধরেন। 

বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা হারভেস্ট প্লাস বাংলাদেশ এ কর্মশালার আয়োজন করে।

আরো পড়ুন: চিকিৎসার নামে শিশুকে ধর্ষণ করল কবিরাজ

নিজের বক্তব্যে সাখাওয়াত ইকরাম বলেন, ভারত সরকারের কৃষিবিভাগ তাদের ধান উৎপাদন বাড়ানোর জন্য সে দেশের ধানচাষীদের মাঝে সার, কীটনাশকসহ বিভিন্ন উপকরণের প্রণোদনা প্যাকেজ দেয়, তারা সেটাকে ‘মিনিকিট’ বলে থাকে। সেই মিনিকিট শব্দটাকে পুঁজি করেই হয়ত বাংলাদেশে মিনিকেট শব্দটা প্রচলিত করেছেন কতিপয় অসাধু চালকল মালিক ও ব্যবসায়ীরা।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের কতিপয় অসাধু চালকল মালিক অধিক মুনাফা লাভের আশায় কথিত এই ‘মিনিকেট’ চালের ব্যবসা করছে। তারা বাংলাদেশের ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট উদ্ভাবিত চিকন ও মোটা জাতের বিভিন্ন ধান বা হাইব্রিড জাতের বিভিন্ন ধান চালকলে বিশেষ প্রক্রিয়ায় ছাটাইবাছাই করে চালের একটা বিশেষ আকার তৈরি করে সেই চালকেই মিনিকেট নাম দিয়েছেন। তারা আকর্ষণীয় মোড়কে বাজারে এবং বড় বড় শহরের শপিংমলে বাজারজাত করে চড়া মূল্যে এই মিনিকেট চাল বিক্রি করছে। 
এসময়- চালকলে বিশেষ মেশিনের সাহায্যে প্রক্রিয়াজাত করার কারণে সুন্দর দেখা গেলেও প্রচলিত সাধারণ ধানের চালের মতো পুষ্টিগুণ কথিত ‘মিনিকেট’ চালের ভাতে থাকে না। এই কথিত ‘মিনিকেট’ জাতের কোনো ধান ভারতেও উদ্ভাবিত হয়নি বলেও যোগ করেন তিনি।

আরো পড়ুনঃ স্বামী হত্যা, বাদী ‘স্ত্রী’ যখন আসামি

এই কৃষি কর্মকর্তা বলেন, বাংলাদেশে যেহেতু মিনিকেট জাতের কোনো ধান আজো উদ্ভাবন হয় নাই, তাহলে ধরে নেয়া যেতে পারে যে এই দেশের কতিপয় অসাধু চালকল মালিক ও ব্যবসায়ীরা কথিত ‘মিনিকেট’ চালের ব্যবসার নামে সবাইকে ঠকাচ্ছে। এই মিনিকেট চালের কারণে দেশীয় জাতের ধানের চালও একদিকে বাজার হারাচ্ছে ও ক্রেতারা ঠকছেন।

 

অন্যদিকে অজ্ঞানতার বশে চটকদার পুষ্টিগুণহীন কথিত ‘মিনিকেট’ চালের ভাত খেয়েও অনেক মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন। দেশে প্রচলিত ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনের মাধ্যমে মিনিকেট চালকল মালিক ও ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হলে দেশের কৃষক ও সাধারণ মানুষ অনেক উপকৃত হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

আরো পড়ুনঃ মাদারীপুরে এক তরুণীর নগ্ন ছবি ও ভিডিও ফেসবুকে!

এ কর্মশালায় জামালপুর সদরের এসিল্যান্ড মাহমুদা বেগমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জামালপুর সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আবুল হোসেন। এসময় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. আমিনুল ইসলাম, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. কে এম শফিকুজ্জামান, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নাহিদা ইয়াসমিন, সদর উপজেলা পরিষদের মহিরা ভাইস চেয়ারম্যান ফারজানা ইয়াসমিন লিটা, ওয়ার্ল্ডভিশনের জেলা কর্মকর্তা মো. হাফিজুর রহমান, ব্লিংগস প্রকল্পের সমন্বয়কারী মো. হাবিবুর রহমান খান প্রমুখ।



একটিভ নিউজ / এস কে
×
সারাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

জামালপুর সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মোহাম্মদ সাখাওয়াত ইকরাম বলেন, বাংলাদেশে মিনিকেট জাতের কোনো ধানও নেই, চালও নেই। বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট আজ পর্যন্ত এই জাতের কোনো ধান উদ্ভাবনও করেনি। প্রতিবেশী দেশ ভারতেও মিনিকেট জাতের কোনো ধান নেই।  জামালপুর সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আজ বুধবার

Active News logo
    Active news app

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ আজিজুর রহমান
সহ-সম্পাদক: বি, এম বাবলুর রহমান
উপদেষ্টা: এ‍্যাডভোকেট আসাদুজ্জামান, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট
উপদেষ্টা: জাহাঙ্গীর আকন্দ
প‍্যারামাউন্ট হাইটস, পল্টন, ঢাকা-১০০০।
টেলিফোন: ০২-৪৮৯৫৭৯৬৭
মোবাইল: ০১৭১৬-৪৬৫৬১৬
ইমেইল: activenewsoffice@gmail.com