×
  • ঢাকা
  • শনিবার, ১২ জুন, ২০২১, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮
Active News 24

তাবিজ দেয়ার নামে প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণ, অন্তঃসত্ত্বা হওয়ায় ঘটনা ফাঁস


একটিভ নিউজ | ডেস্ক: প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২১, ০৫:৪৮ পিএম তাবিজ দেয়ার নামে প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণ, অন্তঃসত্ত্বা হওয়ায় ঘটনা ফাঁস
প্রতীকী

খানকার মসজিদের ইমামের কাছে তাবিজ আনতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক নারী। শুধু তাই নয়, এ ঘটনা কাউকে জানালে কুফরির মাধ্যমে বান মেরে নির্যাতিতাকে হত্যা করা হবে বলে হুমকি দেওয়ার অভিযোগও উঠেছে। 

এসব অভিযোগে গত বৃহস্পতিবার (৭ জানুয়ারি) রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর থানায় মাওলানা সিরাজুল ইসলামের (৫০) নামে মামলা হলে আসামিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। 

গ্রেফতার সিরাজুল ইসলাম নবীনগর উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামের আবুল উলায়া খানকার প্রধান পরিচালক ও সেখানের মসজিদের ইমাম।

আরো পড়ুন: নায়িকা হতে এসে গণধর্ষণের শিকার তরুণী

মামলার এজহার সূত্রে জানা যায়, গত দুই মাস আগে আবুল উলায়া খানকা শরীফে ওই নারী তার ৫ বছরের শিশুকন্যার জন্য তাবিজ আনতে যান। সেখানে গেলে দরজা বন্ধ করে তাকে ধর্ষণ করেন সিরাজুল ইসলাম। এরপর এ বিষয়ে কারো কাছে কিছু বললে তাকে ও তার শিশুকে কুফরির মাধ্যমে বান মেরে হত্যা করা হবে বলে হুমকি দেওয়া হয় ওই নারীকে। সে ভয়ে ধর্ষণের বিষয়টি এতোদিন গোপন রেখেছিলেন ওই নারী।

আরো পড়ুন: নিজের শিশু ভাতিজিকে ধর্ষণ করতে গিয়ে চাচা আটক

মামলায় সূত্রে আরো জানা যায়, ধর্ষণের কারণে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে স্বামীর বাড়ির লোকজন বিষয়টি টের পায়। এরপর ওই নারী ধর্ষণের বিষয়টি প্রকাশ করলে স্থানীয়ভাবে মীমাংসার জন্য সর্দাররা নবীনগর পৌর এলাকার ভোলাচং উচ্চ বিদ্যালয়ে মাঠে বসে। এদিকে পুলিশ এ ঘটনার খবর পেয়ে সিরাজুল ইসলামকে বৃহস্পতিবার রাতে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে।

নবীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আমিনুর রশিদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

ওসি আমিনুর রশিদ বলেন, আসামিকে মামলার ভিত্তিতে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ডেস্ক / একটিভ নিউজ