ঢাকা, মঙ্গলবার, ১২ মাঘ ১৪২৭, ২৬ জানুয়ারী, ২০২১

Facebook Twitter Youtube

Logo

শ্যালিকাকে ধর্ষণের পর যৌনপল্লীতে বিক্রি করতে গিয়ে যুবক আটক 

স্কুল পড়ুয়া শ্যালিকাকে ধর্ষণের পর দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে নিয়ে বিক্রির চেষ্টা করলে তার চিৎকারে স্থানীয়রা অটক করে দুলাভাই মাসুদ প্রামানিককে। এরপর শ্যালিকা-দুলাভাই দুজনকে আটকে রেখে পুলিশে খবর দেয়া হয়। জানা যায়, মাসুদ ওই স্কুলছাত্রীর আপন চাচাতো বোনের স্বামী। তিনি রাজবাড়ীর কালুখালী থানার দুর্গাপুর বাওইখোলা গ্রামের

ডেস্ক: একটিভ নিউজ
প্রকাশিত: শনিবার, ০৯ জানুয়ারী, ২০২১, ০৯:৩৩
ধর্ষক
সংগৃহীত

স্কুল পড়ুয়া শ্যালিকাকে ধর্ষণের পর দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে নিয়ে বিক্রির চেষ্টা করলে তার চিৎকারে স্থানীয়রা অটক করে দুলাভাই মাসুদ প্রামানিককে। এরপর শ্যালিকা-দুলাভাই দুজনকে আটকে রেখে পুলিশে খবর দেয়া হয়।

জানা যায়, মাসুদ ওই স্কুলছাত্রীর আপন চাচাতো বোনের স্বামী। তিনি রাজবাড়ীর কালুখালী থানার দুর্গাপুর বাওইখোলা গ্রামের আব্দুল জলিল ফকিরের ছেলে।

ঘটনার পর স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় মামলা করলে আজ শনিবার (৯ জানুয়ারি) দুপুরে মাসুদ প্রামানিককে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন রাজবাড়ীর আদালত।

আরো পড়ুন: তাবিজ দেয়ার নামে প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণ, অন্তঃসত্ত্বা হওয়ায় ঘটনা ফাঁস

মামলার এজাহার ও স্থানীয় সূত্র থেকে জানা যায়, উদ্ধার ওই কিশোরীর (১৫) বাড়ি রাজবাড়ীর কালুখালী থানা এলাকায়। বৃহস্পতিবার (৭ জানুয়ারি) রাতে শ্যালিকাকে তার প্রেমিক সানির কাছে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে কালুখালী রেলস্টেশনের পাশে এক বাড়িতে নিয়ে যায় মাসুদ।

 

সেখানে একটি রুমে আটকে তাকে ধর্ষণ করেন তিনি। পরদিন বিকেলে আবারো প্রেমিক সানির কাছে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর ১নম্বর গেটের সামনে নিয়ে আসে।

আরো পড়ুন: নায়িকা হতে এসে গণধর্ষণের শিকার তরুণী

এজহার সূত্রে আরো জানা যায়, কিছুক্ষণ পর পল্লীর ভেতর থেকে সেখানে এসে উপস্থিত হয় মাসুদ প্রামানিকের দুই সহযোগী। তারা তিনজন মিলে স্কুল ছাত্রীকে পল্লীর ভেতরে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। বিষয়টি বুঝতে পেরে 'আমাকে বাঁচাও, আমাকে বাঁচাও' বলে মেয়েটি চিৎকার করতে থাকে। 
এরপর স্থানীয়রা এগিয়ে এসে শ্যালিকা-দুলাভাই দুজনকে আটকে পুলিশে খবর দেয়। গোয়ালন্দ ঘাট থানা পুলিশ স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার ও মেয়েটির দুলাভাই মাসুদ প্রামানিককে হাতেনাতে গ্রেপ্তার করে।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, 'প্রাথমিক তদন্তে দুলাভাই কর্তৃক শ্যালিকাকে ধর্ষণ শেষে যৌনপল্লীতে নিয়ে বিক্রির চেষ্টা ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। মামলার অপর দুই অজ্ঞাত আসামিকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।



একটিভ নিউজ / এস কে
×
সারাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

স্কুল পড়ুয়া শ্যালিকাকে ধর্ষণের পর দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে নিয়ে বিক্রির চেষ্টা করলে তার চিৎকারে স্থানীয়রা অটক করে দুলাভাই মাসুদ প্রামানিককে। এরপর শ্যালিকা-দুলাভাই দুজনকে আটকে রেখে পুলিশে খবর দেয়া হয়। জানা যায়, মাসুদ ওই স্কুলছাত্রীর আপন চাচাতো বোনের স্বামী। তিনি রাজবাড়ীর কালুখালী থানার দুর্গাপুর

Active News logo
    Active news app

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ আজিজুর রহমান
সহ-সম্পাদক: বি, এম বাবলুর রহমান
উপদেষ্টা: এ‍্যাডভোকেট আসাদুজ্জামান, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট
উপদেষ্টা: জাহাঙ্গীর আকন্দ
প‍্যারামাউন্ট হাইটস, পল্টন, ঢাকা-১০০০।
টেলিফোন: ০২-৪৮৯৫৭৯৬৭
মোবাইল: ০১৭১৬-৪৬৫৬১৬
ইমেইল: activenewsoffice@gmail.com