×
  • ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ০৯ মার্চ, ২০২১, ২৫ ফাল্গুন ১৪২৭
Active News 24

ঝিনাইদহে সারারাত নির্যাতনের পর গৃহবধূকে গলা কেটে দুর্বিত্তরা পলাতক


একটিভ নিউজ | ডেস্ক: প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২১, ০৫:৪৮ পিএম ঝিনাইদহে সারারাত নির্যাতনের পর গৃহবধূকে গলা কেটে দুর্বিত্তরা পলাতক
সংগৃহীত ছবি

ঝিনাইদহ জেলার শৈলকূপা উপজেলায় গত মঙ্গলবার সারা রাত নির্যাতনের করার পর এক নারীকে গলা কেটে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। এলাকাবাসী সূত্রে জানা 
যায় যে, গত বুধবার (২০শে  জানুয়ারি) সকালে শৈলকূপা উপজেলার আওশিয়া গ্রামের জাকির হোসেন নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে গলাকাটা অবস্থায় আশ্রয় নেন নির্যাতিতা নারী।

সূত্র আরও জানায়, জাকির ওই নারীকে গলায় রক্তাক্ত ওড়না পেঁচানো অবস্থায় দেখতে পান। ওই সময় জাকির কোনো কথা বলতে পারছিলেন না। পরে পুলিশকে জানালে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে শৈলকূপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠালে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করে।

আরও পড়ুন: প্রেমিকাকে ধষর্ণের প্রতিশোধ নিতে অভিনব পথ বেছে নিল প্রেমিক

আহত নারীর পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, মাগুরা জেলার শ্রীপুর উপজেলার চন্ডিখালি গ্রামের মৃত শাহাদত হোসেনের ছেলে হুসাইনের সাথে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে পরিচয় থেকে প্রেম হয় তার। বিভিন্ন সময়ে হুসাইন তাকে বাড়ি থেকে বেড়াতে নিয়ে যেত। গত মঙ্গলবার এশার আজানের সময় ওই নারীর দুলাভাই হরিহরা গ্রামের রাব্বুলের বাড়ি থেকে তাকে আউশিয়া গ্রামে নিয়ে যান হুসাইন। পরে সকালে তারা জানতে পারেন যে ওই নারীকে পুলিশ আহত অবস্থায় উদ্ধার করেছে। তার গলায় থাকা স্বর্ণের চেইন ও কানের দুল পাওয়া যায়নি। হুসাইন আউশিয়া গ্রামের আব্দুল গফুরের জামাতা।

আরও পড়ুন: মাদারীপুরে গোসলের ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে গৃহবধুকে ধর্ষণ (ভিডিও সহ)

আহত নারীর দুলাভাই রাব্বুল অভিযোগ করেন, ওই নারীকে রাতভর নির্যাতনের পর হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে।

শৈলকূপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তদন্ত মোহসিন হোসেন জানিয়েছে, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে এবং সেখান থেকে একটি রক্তমাখা চাকু উদ্ধার করা হয়েছে। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
 

ডেস্ক / একটিভ নিউজ