• ঢাকা
  • বুধবার, ০৩ মার্চ, ২০২১, ১৮ ফাল্গুন ১৪২৭
Active News 24

পৌরসভা নির্বাচন: কালকিনি জুরে বইছে উৎসবমূখর পরিবেশ


একটিভ নিউজ: | ম.ম.হারুন অর রশিদ: প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২১, ০৫:৪৮ পিএম পৌরসভা নির্বাচন: কালকিনি জুরে বইছে উৎসবমূখর পরিবেশ

আর মাত্র কয়েকদিন পরেই কালকিনি পৌরসভা নির্বাচন। এরই মধ্যে পুরো কালকিনি জুরে বইছে এক উৎসবমূখর পরিবেশ। হাটে-বাজারে, চায়ের দোকানে, পারা-মহল্লা সব জায়গায় শুধু নির্বাচনী আলোচনা। 

এ পৌরসভা নির্বাচনে কালকিনিতে মেয়র পদে পাঁচ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তারা প্রত্যেকেই ইতোমধ্যে পৌরবাসীর জীবনমান উন্নয়ন, নাগরিক অধিকার নিশ্চিত এবং সকলের দুঃখ-দুর্দশায় পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়ে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। 

১৪ ফেব্রুয়ারী অনুষ্ঠিত হবে কালকিনি পৌরসভার ভোটগ্রহণ। এবার প্রথমবারের মতো ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) এর মাধ্যমে  ভোট দেওয়ার স্বাদ গ্রহণ করবেন পৌরবাসীরা। ভোট নিয়ে সব বয়সের মধ্যে যথেষ্ট আগ্রহ দেখা গেছে। তবে, ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট দেওয়া নিয়েও শঙ্কা রয়েছে তাদের মধ্যে। প্রতীক বরাদ্দের পর থেকে জমে উঠেছে নির্বাচনী মাঠ। প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন মেয়র, সংরক্ষিত মহিলা ও কাউন্সিলর প্রার্থী এবং তাদের সমর্থকেরা। সব মিলিয়ে সরগরম কালকিনি তৃণমূলের রাজনীতি।

আরো পড়ুন : ওসিকে নিয়ে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী

সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা শেখ বদররুদ্দিন জানান, পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে পাঁচ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩০ জন ১ জন মহিলাসহ এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ১১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মোট ভোটার সংখ্যা ৩৩ হাজার ৪শ’জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৭ হাজার ৩শ’জন এবং মহিলা ভোটার ১৬ হাজার ৭শ’জন। 

সরেজমিনে কালকিনি পৌর এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, পৌর এলাকায় এখন নির্বাচনী হওয়া বইছে। প্রার্থীরা লিফলেট বিতরণ, পোস্টার টাঙ্গিয়ে ও মাইকিংয়ের মাধ্যমে নির্বাচনী মাঠে নিজেদের জন্য দোয়া ও ভোট চাচ্ছেন। প্রার্থী ও তাদের সমর্থকরা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকেও চলাচ্ছেন জোর প্রচার-প্রচারণা। 

কালকিনিতে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী পাচ জন হলেন- নৌকা প্রতীক নিয়ে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও  উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা এস এম হানিফ, ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে বিএনপি মনোনীত কালকিনি পৌর বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন বেপারী, হাত পাখা প্রতীক নিয়ে ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী ইসলামী আন্দোলনের পৌর সভাপতি লুৎফার রহমান,  নারিকেল গাছ প্রতীক নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী মশিউর রহমান সবুজ এবং চামচ প্রতীক নিয়ে আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী প্রার্থী সোহেল রানা মিঠু  নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দিতা করছেন। 

আরো পড়ুন : ফরিদপুরে ভাইয়ের সাথে অভিমান করে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা

কালকিনিতে স্থানীয় আওয়ামী লীগ রাজনীতিতে কিছু মতবিরোধ থাকলেও পৌর নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সেই মতবিরোধ এখন আর চোখে পড়ছে না। দলের হাই কমান্ড এবং কেন্দ্রের নির্দেশনা মোতাবেক দলীয় প্রার্থীর বিজয় নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সবাই একসঙ্গে কাজ করছেন। ফলে অনেকটাই ফুরফুরে মেজাজে মাঠ দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন নৌকা মার্কার প্রার্থী এস এম হানিফ ও তার সমর্থকেরা। করছেন সভা সমাবেশ, দিচ্ছেন আধুনিক পৌরসভা গড়ার প্রতিশ্রুতি। দিন রাত ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে ভোট চাইছেন দলের অন্যান্য নেতাকর্মী ও সমর্থকরা। 

এ বিষয়ে আওয়ামী লীগ প্রার্থী এস এম হানিফ বলেন, কেন্দ্রিয় আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ও মাদারীপুর ৩ আসনের সংসদ সদস্য ড. আবদুস সোবহান গোলাপ ভাইয়ের দোয়া, ভালোবাসা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সকল নেতাকর্মী ও জনগনকে নিয়ে প্রত্যেক ভোটারের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট প্রাথর্না করে বেড়াচ্ছি। ভোটারা আগামি ১৪ তারিখ সারাদিন নৌকা প্রতিকে ভোট দেওয়ার জন্য প্রস্তুত হয়ে আছেন। এস এম হানিফ আরো বলেন, আমি সাধারণ মানুষের আশার প্রতিফলন ঘটাতে সক্ষম হয়েছি। গরীব এবং মেহনতি মানুষের পাশে সবসময় থাকার চেষ্টা করেছি। তাই এখানকার ভোটাররা নৌকা প্রতীকে ও আমাকে ভোট দিবেন বলে আমি মনে করি। 

এস এম হানিফ আরো বলেন, নৌকার জনপ্রিয়তা দেখে বিভিন্ন স্থানে আমার নেতাকর্মীদের উপর হামলা করা হচ্ছে, নৌকার প্রতীক ও পোষ্টার ছিড়ে ও আগুন দিয়ে পোড়ানোর মত ঘটনাও ঘটিয়েছেন আমার প্রতিদ্বন্দ্বিরা। আমি তাদেরকে সুস্থ ও শান্তি পূর্ণ নির্বাচনী পরিবেশ বজায় রাখার অনুরোধ জানাচ্ছি। 

আরো পড়ুন : গুপ্তধনের গুজব: মাটি খুঁড়ে মিললো ৯ ড্রাম মদ!

এদিকে, বিএনপির স্থানীয় রাজনীতিতে মতবিরোধ থাকায় অনেকটাই ছন্যছাড়া ছন্যছাড়া ভাবে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে দারিয়ে আছেন বিএনপি প্রার্থী কামাল হোসেন। মাঠে তেমন কোন প্রচার প্রচারণা নেই বল্লেই চলে। কেন্দ্রিয় বিএনপির সহ গণশিক্ষা সম্পাদক আনিসুর রহমান তালুকদার খোকন এলাকায় আসলে নেতা কর্মীদের নিয়ে ভোট চাচ্ছেন। প্রার্থীকে বিজয়ী করার লক্ষ্যে দলীয় প্রতীক ধানের শীষের সালাম পৌঁছে দিচ্ছেন।  তারা দেশে ভোটের অধিকার নিশ্চিত করতে ধানের শীষে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছেন। 

নারকেল গাছ প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী মশিউর রহমান সবুজ বলেন, নির্বাচনী পরিবেশ এখনও ভালো আছে মাঝে মাঝে ভোট চাইতে গিয়ে বাধার সম্মুক্ষিন হচ্ছি। তবে, কালকিনিতে আমার কর্মী-সমর্থকেরা পোস্টার লাগিয়ে আসলে পরদিন সকালে আর দেখা যায় না। কে বা কারা রাতের কোনও এক সময় আমার ‘নারিকেল গাছ’ মার্কার পোস্টার ছিড়ে ফেলছে। ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ভোট প্রার্থনা করছি। যদি সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভোট হয় তবে বিপুল ভোটে জয়লাভ করবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। 

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার শেখ বদররুদ্দিন জানান, নির্বাচনকে অবাধ, সুষ্ঠু এবং প্রভাবমুক্ত করার জন্য সব প্রস্তুতি প্রায় সম্পন্ন। ইভিএম-এ যেন সাধারণ মানুষ ভোট দিতে পারেন সেই লক্ষ্যে এলাকায় লিফলেট বিতরণ করা হচ্ছে। আগামি ১২, ১৩ ফেব্রুয়ারী শুক্রবার ও শনিবার পৌর এলাকার গুরুত্ব পূর্ণ স্থানে ও উপজেলা পরিষদের প্রধান ফটকে সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) পদ্ধতিতে ওয়ার্ডে ডামি ভোটিংয়ের ব্যাবস্থা করা হয়েছে। মাইকিং করে তা জানিয়ে দেওয়া হবে। 

আরো পড়ুন : শরীয়তপুরে শিশু ধর্ষণ-হত্যা: ২ জনের ফাঁসির রায়

কালকিনি নির্বাচন অফিসের দেওয়া তথ্যমতে, কালকিনি পৌরসভার নির্বাচনে ৯টি ওয়ার্ডে মোট ভোট কেন্দ্র ১৮টি। এর মধ্যে পুরুষ ভোট কেন্দ্র ৯টি, মহিলা ভোট কেন্দ্র ৯টি।  ভোট কক্ষ ১০০টি এবং  প্রতেকটি ভোট কক্ষের জন্য ১টি করে অতিরিক্ত ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) এর ব্যাবস্থা রাখা হয়েছে। 

কালকিনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাছির উদ্দিন জানান, কালকিনি পৌরসভার নির্বাচনে ৯টি ওয়ার্ডে মোট ভোট কেন্দ্র ১৮টি কেন্দ্রকেই ঝুকি পূর্ণ হিসেবে গ্রহণ করা হয়েছে। সব দলের নেতাকর্মীরা যাতে নির্বাচনী বিধী মেনে চলে এবং নির্বাচনী পরিবেশ স্বাভািবিক থাকে সেই লক্ষ্যে  আমরা মাঠে আছি।