• ঢাকা
  • শনিবার, ০৬ মার্চ, ২০২১, ২২ ফাল্গুন ১৪২৭
Active News 24

বরিশালে প্রেমিকাকে বাঁচাতে বটির কোপে প্রেমিক আহত 


| ডেস্ক: প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২১, ০৫:৪৮ পিএম বরিশালে প্রেমিকাকে বাঁচাতে বটির কোপে প্রেমিক আহত 

বরিশালে গৌরনদীতে প্রেমিকাকে বাঁচাতে বটির ৫ কোপে প্রেমিক রাসিক হাওলাদার (১৭) নামে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীআহত হয়েছেন।  রফিক সরদার (২৫) নামে এক তরুণের বটির কোপে সে প্রেমিক আহত হয়।  

গতকাল বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে গৌরনদী উপজেলার একটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

ওই কিশোরকে রাত ৯টার দিকে প্রথমে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। এরপর উন্নত চিকিৎসার জন্য সেখান থেকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এদিকে, হামলায় জড়িত রফিক সরদার আত্মগোপন করায় অভিযান চালিয়ে তার মা ও ভগ্নিপতিকে আটক করেছে পুলিশ। 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রাসিক হাওলাদার ও তার স্কুলের একই ক্লাসের শিক্ষার্থীর মধ্যে চার বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছে। এরপর মাঝে মধ্যেই ওই কিশোরীকে তার আত্মীয়ের বাড়ি নিয়ে যেতেন ওই কিশোর। যা তার ওই আত্মীয়ের এক প্রতিবেশী ও তার ছেলে ভালোভাবে নিতেন না। সবশেষ বৃহস্পতিবার প্রেমিকাকে নিয়ে রাসিক তার ওই আত্মীয়ের বাড়িতে দীর্ঘক্ষণ অবস্থান করে।

আরো পড়ুন: ময়মনসিংহে বাবা হওয়ার খবর শুনে স্ত্রীকে তালাক

এদিকে, আত্মীয়ের ওই প্রতিবেশী তার ছেলেকে নিয়ে দরজা খুলতে বলেন। তারা দরজা না খুললে একপর্যায়ে ভেঙ্গে ভিতরে ঢুকে ওই কিশোরীকে তাড়া করেন। এসময় ওই প্রেমিক তার প্রেমিকাকে বাঁচাতে গিয়ে বটির কোপে আহত হন। বারবার ঠেকাতে গিয়ে অন্তত পাঁচটি কোপ লাগে। একপর্যায়ে মাটিতে পড়ে যান ওই প্রেমিক। প্রেমিকার চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে ওই কিশোরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। অন্যদিকে, পালিয়ে যান ওই প্রতিবেশী তরুণ।   

ওই প্রতিবেশী নারীর দাবি, তারা অনৈতিক কার্যকলাপে লিপ্ত ছিল। বিষয়টি জানতে পেরে তারা ওই তরুণ তরুণীকে ওই বাড়ি থেকে চলে যেতে বলেন। কিন্তু তারা কথা না শোনায় ওই নারীর ছেলে রফিক ক্ষিপ্ত হয়ে এ ঘটনা ঘটায়।

আরো পড়ুন:  প্রেমিকার সাথে দেখা করার সময় বন্ধুদের হামলায় প্রেমিক নিহত

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সংবাদমাধ্যমকে গৌরনদী থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) মো. তৌহিদুজ্জামান জানান, এ ঘটনার পরপরই আত্মগোপন করেছে রফিক। তার সন্ধান ও ঘটনার কারণ জানতে রাতে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে ওই প্রতিবেশী নারী রানু বেগম ও রফিকের ভগ্নিপতি শাখাওয়াত হোসেনকে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদের পাশাপাশি মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান ওই পুলিশ কর্মকর্তা। 

একটিভ নিউজ