• ঢাকা
  • বুধবার, ০৩ মার্চ, ২০২১, ১৮ ফাল্গুন ১৪২৭
Active News 24

স্বামীর নগ্ন ভিডিও দেখার পর স্ত্রীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন


একটিভ নিউজ | ডেস্ক: প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২১, ০৫:৪৮ পিএম স্বামীর নগ্ন ভিডিও দেখার পর স্ত্রীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন
প্রতীকী ছবি

গোপালগঞ্জ জেলার কোটালীপাড়া উপজেলায় স্বামীর নগ্ন ভিডিও দেখার পর স্ত্রীকে বিবস্ত্র করে নির্মম নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। গত মঙ্গলবার (৯ ফেব্রুয়ারি) উপজেলার কলাবাড়ী ইউনিয়নের কালীগঞ্জ বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায়, কালীগঞ্জ গ্রামের সুভাষ বাড়ৈর ছেলে সঞ্জিত বাড়ৈয়ের (৩০) সাথে একই উপজেলার মধ্যকান্দি  গ্রামের যোগেন্দ্র বাড়ৈর মেয়ে সিঁথির (১৮) দুই বছর আগে বিয়ে হয়। সিঁথি সঞ্জিতের দ্বিতীয় স্ত্রী। সম্প্রতি এক নারীর সাথে শারীরিক সম্পর্কের ভিডিও নিজের মোবাইলে ধারণ করে রাখেন সঞ্জিত। 

গত মঙ্গলবার রাতে সঞ্জিতের মোবাইল ফোনে সেই ভিডিও সিঁথি দেখে ফেলেন। পরে এ নিয়ে স্বামীর সাথে কথা কাটা-কাটির এক পর্যায়ে স্ত্রীকে বিবস্ত্র করে ঘরের খুটির সাথে বেঁধে মুখে টেপ পেঁচিয়ে দেন সঞ্জিত। পরে স্ত্রীর গোপনাঙ্গসহ বিভিন্ন স্থানে নির্মমভাবে আঘাত করেন এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো ব্লেড দিয়ে কেটে দেন। এ সময় নিজের মোবাইল ফোনে ভিডিও ধারণ করেন সঞ্জিত। 

পরের দিন গত বুধবার সকালে সিথির বাবা যোগেন্দ্র বাড়ৈ খবর পেয়ে ভাঙ্গার হাট নৌ-তদন্ত ফাঁড়িতে বিষয়টি জানান। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে সিঁথিকে উদ্ধার করে কোটালীপাড়া হাসপাতালে  ভর্তি করে।

আরো পড়ুন: বরিশালের এক রাতে গৃহবধূকে দুবার ধর্ষণ!

এ বিষয়ে জানতে সঞ্জিত বাড়ৈর সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি। তার বড় ভাই সমীর বাড়ৈ বলেন, ভাইয়ের সাথে তার সম্পর্ক ভাল না। ছোট ভাই স্ত্রীকে মারপিট করেছেন বিষয়টি তিনি শুনেছেন।

কোটালীপাড়ার স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সুষান্ত বৈদ্য জানালেন, মেয়েটির ওপর নির্যাতন হয়েছে। তাকে কোটালীপাড়া রেখেই চিকিৎসা করানো সম্ভব ছিল। কিন্তু রোগীর স্বজনরা তাকে কোটালীপাড়া রাখতে রাজি হয়নি।

আরো পড়ুন: মুন্সীগঞ্জে স্কুল ছাত্রীকে গণর্ধষণ করে ভিডিও ধারণ

এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে কোটালীপাড়া থানার ভাঙ্গারহাট ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) আহাদুজ্জামান  বলেন, “খবর পেয়ে সিঁথিকে উদ্ধার করে কোটালীপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করি। একই সাথে সিথির স্বামী সঞ্জিত বাড়ৈকে ফাঁড়িতে আনা হয়। পরে এলাকার তুষার মেম্বার ও সন্তোষ মেম্বারসহ দুই পরিবারের অভিভাবকরা বিষয়টি মীমাংসা করে দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে সঞ্জিতকে নিয়ে যায় এবং সঞ্জিতের মোবাইল ফোন তুষার মেম্বারের কাছে দেওয়া হয়।” 

উপপরিদর্শক আরও বলেন, “কোটালীপাড়া উপজেলার কালীগঞ্জ বাজারে সাড়ে পাঁচ কাঠা জমি সিঁথির নামে লিখে দেওয়ার আশ্বাসে ওই নারীর পরিবার মামলা করতে রাজি হয়নি। অভিযোগ না করায় পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারছি না।”

কোটালীপাড়ার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ লুৎফর রহমান বলেন, স্বামীর পরকীয়া প্রেম নিয়ে স্ত্রীকে মারপিটের ঘটনা ঘটেছে। স্ত্রী এখন খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। স্বামী সঞ্জিত তার চিকিৎসার ব্যয়ভার নিয়েছেন। এ বিষয়ে ভুক্তভোগী মামলা করতে রাজি না।

আরো পড়ুন: শ্রীমঙ্গল রিসোর্টে টিস্যু বক্সে ক্যামেরা লাগিয়ে দম্পতির অন্তরঙ্গ ভিডিও ধারণ

ওই নির্যাতিতার বাবা যোগেন্দ্র বাড়ৈ বলেন, তার মেয়ে বর্তমানে খুলনা মেডিকেল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। তবে, তিনি মেয়ের নামে জমি লিখে নেয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। এছাড়া বিষয়টিকে স্বামী-স্ত্রীর বিবাদ বলে উল্লেখ করেছেন তিনি। 

এ বিষয় নিয়ে সালিশ করে দেওয়া স্থানীয় দুই মেম্বারের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে তাদের পাওয়া যায়নি ।