×
  • ঢাকা
  • বুধবার, ১৯ মে, ২০২১, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

শৈলকুপায় ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষককে পিটিয়ে জখম, হাসপাতালে ভর্তি!


জাহিদুর রহমান তারিক | ঝিনাইদহ প্রতিনিধি প্রকাশিত: এপ্রিল ১০, ২০২১, ১১:২২ এএম শৈলকুপায় ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষককে পিটিয়ে জখম, হাসপাতালে ভর্তি!

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় চাষের জমিজমা বিরোধের জের ধরে ইয়ামিন হোসেন (৫৮) নামের এক শিক্ষককে মারাত্মকভাবে পিটিয়ে জখম করা হয়েছে।

গত শুক্রবার (৯ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের কিসমত মাইলমারী গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। আহত শিক্ষক ওই গ্রামের মৃত আব্দুল ওহাব মোল্ল্যার ছেলে ও ১৫৫নং মহিষগাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক।

আহত শিক্ষক ইয়ামিন হোসেন জানান, কিসমত মাইলমারী এলাকায় এক বছর আগে তার নিজের জমি ওই গ্রামের মৃত দেলবার বিশ্বাসের ছেলের কাছে এক বছরের চুক্তিতে লিজ দেয়। চুক্তির সময় পার হলেও তারা জমি ছাড়তে রাজি হয়নি। তারা দাবি করেন আরো এক বছরের। তিনি তাদের দাবিতে রাজি না হওয়ায় বিভিন্ন হুমকি দিয়ে আসছিল তারা।

আরো পড়ুন: করোনা আক্রান্তে পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের মৃত্যু

জমিতে কলাগাছ লাগাতে বাঁধা দিলে শুক্রবার সকালে শাহাজাহান আলী তার ভাই আব্দুল লতিফ, শহিদুল ইসলাম ও ছেলে মিন্টুসহ প্রায় ১০/১২ জন তার বাড়িতে এসে অতর্কিতভাবে তার উপর রড, লাঠিসোটা ও দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র দিয়ে তার দুই পা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারপিট করলে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।

পরে পরিবারের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে শৈলকুপা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। শৈলকুপার মির্জাপুর ইউনিয়নের রামচন্দ্রপুর পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই শামিম আক্তার জানান, শিক্ষকের উপর হামলার ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ইউসুফ / একটিভ নিউজ