×
  • ঢাকা
  • সোমবার, ১৭ মে, ২০২১, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

ধামইরহাটে আগাছা নাশক স্প্রে করে ২ একর জমির ফসল বিনষ্ট


মাসুদ সরকার | ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধি প্রকাশিত: এপ্রিল ১২, ২০২১, ০৮:০৬ পিএম ধামইরহাটে আগাছা নাশক স্প্রে করে ২ একর জমির ফসল বিনষ্ট

নওগাঁর ধামইরহাটে প্রতিপক্ষরা আগাছা নাশক স্প্রে করে প্রায় ২ একর জমির ধান নষ্ট করে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ক্ষতিগ্রস্থ জমির মালিকের প্রায় লাখ টাকার ক্ষতি উল্লেখ করে ধামইরহাট থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার শালুককুড়ি গ্রামের মৃত আ. জব্বারের ছেলে সাইদুল ইসলাম শিববাটি মৌজায় আরএস ১০৩ নম্বর খতিয়ানভুক্ত ১ নম্বর দাগে ১ একর ১৭ শতক জমি ফার্শিপাড়া গ্রামের আ. ওয়াহেদের নিকট থেকে বর্গা নিয়ে চাষাবাদ করে আসছেন।

আরো পড়ুন: ৪ মাসের বিয়ে, স্বামীর সঙ্গে সকালে ঝগড়া, দুপুরে লাশ হলেন নববধূ

জানা গেছে, পূর্বশত্রুতার জেরে গত ৬ এপ্রিল রাত সাড়ে ১২টায় গাংরা গ্রামের মজিবর রহমানের ছেলে আকবর ও সিদ্দিকের ছেলে মাফু ফসলি জমিতে আগাছা নাশক স্প্রে করে বেড়ে ওঠা সমস্ত ধান নষ্ট করার অভিযোগ করেন বর্গাদার সাইদুল। তিনি আরো জানান, ওই রাতে জমি হতে স্প্রে মেশিনসহ তাদের দেখেছেন বর্গচাষী। এ সময় তাদের সাথে বাকবিতণ্ডা হয়। পরদিন সকালে জমির ধানগাছ বিবর্ণ আকার ধারন করে নষ্ট হয়ে যাওয়ায় হতাশায় ভেঙে পড়েন বর্গাচাষী।

আরো পড়ুন: কোরআনের ২৬টি আয়াত নিষিদ্ধের আবেদন খারিজ, জরিমানা

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে অভিযুক্ত আকবর বলেন, জমির মুল মালিক ওয়াহেদ আমার ফুফাতো ভাই। তাই আমরা আগাছা নাশক স্প্রে করে ধান নষ্ট করতে পারি না বলে জোর দাবি করেন।

এ বিষয়ে ধামইরহাট থানার উপ-পরিদর্শক ছোলেমান আলী জানান, ধানে আগাছা নাশক দেয়ার বিষয়টি সঠিক। তবে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক ব্যক্তিকে শনাক্ত করতে পারেননি। মাফু ও আকবর ঘটনার সাথে জড়িত বলে বাদী তাদের সন্দেহ করছেন মর্মে আমাকে জানিয়েছেন।

ইউসুফ / একটিভ নিউজ