×
  • ঢাকা
  • শনিবার, ০৮ মে, ২০২১, ২৪ বৈশাখ ১৪২৮

ধান খাওয়ার শঙ্কায় দুই শতাধিক পাখির ছানা হত্যা, কারাগারে ৩


একটিভ নিউজ প্রকাশিত: এপ্রিল ১২, ২০২১, ০৮:৪৬ পিএম ধান খাওয়ার শঙ্কায় দুই শতাধিক পাখির ছানা হত্যা, কারাগারে ৩
সংগৃহীত

পিরোজপুরের ইন্দুরকানী উপজেলার দক্ষিণ ভবানীপুর গ্রামে বাবুই পাখির বাসা ভেঙে ফেলা ও ও পানিতে ফেলে ছানা হত্যার দায়ে ৩ জনকে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সোমবার দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন পিরোজপুর জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অশোক বিক্রম চাকমা। এসময় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে এই আদেশ দেন তিনি। 

আরো পড়ুন: ৪ মাসের বিয়ে, স্বামীর সঙ্গে সকালে ঝগড়া, দুপুরে লাশ হলেন নববধূ

ভ্রাম্যমাণ আদালতের আদেশে অনুযায়ী বাবুই পাখির বাসা ভাঙা ও পাখির ছানা হত্যার অপরাধে ভবানীপুর গ্রামের কৃষক লুৎফর রহমান মোল্লাকে ১৫ দিন, কৃষিশ্রমিক সুনীল বেপারীকে ৭ দিন ও সুনীল মিস্ত্রীকে ৩ দিনের কারাদণ্ড দেন।

এ বিষয়ে ইন্দুরকানী থানার ওসি হুমায়ুন কবির জানান, বন্যপ্রাণি রক্ষা আইনে এ দণ্ড দেওয়া হয়ছে। দণ্ডপ্রাপ্তদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

আরো পড়ুন: কক্সবাজারে প্রতিপক্ষের গুলিতে নারী নিহত

জানা গেছে, ভবানিপুর গ্রামের লুৎফর রহমান মোল্লা এবং তার কৃষিকাজের সহযোগী নাজিরপুর উপজেলার শ্রমিক সুনীল বেপারী ও সুনীল মিস্ত্রী গত শনিবার বিকেলে ধান ক্ষেতের পাশের দুটি তাল গাছে থাকা শতাধিক বাবুই পাখির বাসা বাঁশ দিয়ে ভেঙে ফেলেন। এরপর তারা অনেকগুলো পাখির বাসা খালের পানিতে ফেলে দিলে দুই শতাধিক বাবুই পাখির ছানা মারা যায়। এছাড়া ভেঙে ফেলা পাখির বাসাগুলোতে কয়েকশ' পাখির ছানা ও ডিম ছিল।

এ ঘটনার বিষয়ে স্থানীয়রা জানান, লুৎফর রহমান মোল্লা ও তার তিন ভাই মিলে গ্রামের প্রায় ৫০ বিঘা জমিতে বোরো ধান রোপন করেছেন। সেই জমির ধান খেয়ে ফেলায় আশঙ্কায় তারা বাবুই পাখির বাসাগুলো ভেঙে ফেলেন।

রেজাউল করিম / একটিভ নিউজ