×
  • ঢাকা
  • রবিবার, ১৩ জুন, ২০২১, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮
Active News 24

বড়লেখায় গৃহশিক্ষক খুন, গ্রেফতার ১


একটিভ নিউজ প্রকাশিত: মে ১৭, ২০২১, ১০:৩৭ পিএম বড়লেখায় গৃহশিক্ষক খুন, গ্রেফতার ১
সংগৃহীত

ভূমি সংক্রান্ত পারিবারিক পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ভাতিজা ও ভাগ্নেদের ধারালো দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে গৃহশিক্ষক আপ্তাব উদ্দিন মাস্টার(৫৬) খুন হয়েছেন।

নিহত আপ্তাব উদ্দিনের গ্রামের বাড়ী মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা থানার সফরপুর খাঁনপাড়া গ্রামে। তিনি মৃত আকমল আলীর ছেলে।

নিহতের স্ত্রী জুবেদা বেগমের অভিযোগ, তার দেবর শাহীদুল ইসলামের নির্দেশে পরিকল্পিতভাবে তার স্বামীকে খুন করা হয়েছে।

রবিবার রাতে খুনের ঘটনায় জড়িত ভাতিজা শিব্বির আহমদকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সোমবার (১৭ মে) দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বড়লেখা থানার ওসি মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার।

ময়না তদন্ত শেষে সন্ধ্যা সাত ঘটিকায় জানাজার পর গৃহ শিক্ষক আপ্তাব মাস্টারের লাশ তাঁর নিজ গ্রামের কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

নিহতের পরিবারের অভিযোগ ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, রবিবার সকাল সাতটার সময় আপ্তাব উদ্দিন মাস্টার বাড়ীর দক্ষিণ পাশের রাস্তায় বের হলে পূর্ব থেকে ওঁৎ পেতে থাকা ভাগ্নে রিপন খান (২৬)জসিম উদ্দিন (২৯)ও ভাতিজা শিব্বির আহমদ(৩৩)প্রমূখ দেশীয় অস্ত্র দা লাঠিসোঁটা দিয়ে তাঁর উপর আক্রমন করে।

গুরুতর অবস্থায় তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রাত সাড়ে তিন ঘটিকার সময় সেখানে তার মৃত্যু হয়।
হামলার ঘটনায় জড়িত নিহতের ভাতিজা শিব্বির আহমদকে রাতে পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

নিহত আপ্তাব উদ্দিন মাস্টারের স্ত্রী জুবেদা বেগম অভিযোগ করেন, তার দেবর শাহীদুল ইসলামের সাথে দীর্ঘদিন থেকে তাদের ভূমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছে এবং এর আগে একাধিকবার হত্যার উদ্দেশ্য হামলা করা হয়েছে। স্কুল শিক্ষক শাহীদুল ইসলামের নির্দেশে রবিবার সকালে ভাগ্নে ভাতিজারা মিলে তাঁর স্বামীকে দা দিয়ে কুপিয়ে ও লাঠিসোঁটা দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

বড়লেখা থানার ওসি মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার জানান অভিযোগ পাওয়ার পর রোববার রাতে ১ জন আসামীকে গ্রেফতা করা হয়েছে এবং বাকী আসামীদেরকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

সাইফুল বারী / একটিভ নিউজ