×
  • ঢাকা
  • সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৫ আশ্বিন ১৪২৮
Active News 24

টঙ্গীতে প্রতারনার দায়ে যুবক আটক 


জাহাঙ্গীর আকন্দ | টঙ্গী (গাজীপুর) প্রতিনিধি প্রকাশিত: আগস্ট ১০, ২০২১, ০৮:৪৫ পিএম টঙ্গীতে প্রতারনার দায়ে যুবক আটক 
সংগৃহীত

গাজীপুরের টঙ্গীতে সরকারি গুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তার পরিচয়ে প্রতারনার দায়ে মোঃ শরীফ উদ্দীন ওরফে শেখ আকাশ আহম্মেদ শরীফ ওরফে শেখ আকাশ ইবনে যুবরাজকে আটক করেছে গাজীপুর মেট্রোপলিটন গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। 

গতকাল সোমবার ৯ আগষ্ট সন্ধ্যায় টঙ্গী পুর্ব থানাধীন এরশাদনগর চাঙ্কিরটেক এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে ৪টি আইডি কার্ড(সময় টিভি, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের ব্যক্তিগত সহকারি, সিআইপি, কার্যনির্বাহী সদস্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ), ২টি মোবাইল ফোন, ০১জোড়া হ্যান্ডকাফ, গাড়ীতে ব্যবহারের জন্য ০৩টি লেমনেটিং করা স্টিকার (প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের লোগোসহ, বেঙ্গল গ্রুপ ও সময় টিভি) ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নামসহ একটি সিল এবং বিভিন্ন সময়ে প্রতারণার কাজে ব্যবহার করা একটি প্রাইভেট কার (এলিয়ন এ১৫, ঢাকা মেট্রো ট-২৭-৮৬৮২) উদ্ধার করা হয়। একইসময়ে তার কাছ থেকে ২২০ পিচ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। 

আজ মঙ্গলবার দুপুরে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য নিশ্চিত করেন জিএমপির গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) এর উপ পুলিশ কমিশনার মোঃ নুরে আলম। 

আটককৃত মোঃ শরীফ উদ্দীন ওরফে শেখ আকাশ আহম্মেদ শরীফ ওরফে শেখ আকাশ ইবনে যুবরাজ নেত্রকোনা জেলার মোহনগঞ্জ থানার দূর্গাপুর গ্রামের মোঃ ওয়াজেদ আলীর ছেলে। সে টঙ্গী স্টেশন রোড এলাকায় ভাড়া বাসায় বসবাস করতো। 

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আটককৃত শরীফ বিভিন্ন সময়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী, বিশেষ সহকারী, প্রধানমন্ত্রীর প্রধান তথ্য কর্মকর্তা, বেঙ্গল গ্রুপের পরিচালক, সময় টিভির সাংবাদিক, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (পরিচালক প্রশাসন), এফবিবিসিসিআই এর পরিচালক হিসেবে সিআইপি, ৩৬ তম বিসিএস ক্যাডার (প্রশাসন) ও রাজনৈতিক পরিচয়সহ বিভিন্ন ভুয়া পরিচয় ব্যবহার করে সামজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্নভাবে মানুষের সাথে প্রতারণা করে আসছে। তার কাছ হতে প্রাপ্ত মোবাইল ও ফেসবুক আইডিতে বিভিন্ন প্রভাবশালী ব্যক্তিবর্গের সাথে তার এডিট করা ছবি পাওয়া যায়। এছাড়াও বিভিন্ন সময়ে বিভিন্নজনের কাছ থেকে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে প্রতারণামূলকভাবে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার বিভিন্ন অভিযোগ পাওয়া গেছে। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

রেজাউল করিম / একটিভ নিউজ