• ঢাকা
  • শুক্রবার, ০৫ মার্চ, ২০২১, ২০ ফাল্গুন ১৪২৭
Active News 24

“পরিশ্রম কখনো বৃথা যায়না” : গীতিকবি রিপন মাহমুদ


| ডেস্ক: প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২১, ০৫:৪৮ পিএম “পরিশ্রম কখনো বৃথা যায়না” : গীতিকবি রিপন মাহমুদ
রিপন মাহমুদ

সেই ছোট্ট বেলা থেকেই গান আর ছন্দের প্রতি তার খুব টান। আর সেই টান থেকেই গানের প্রতি অসম্ভব ভালোলাগা এবং ভালোবাসা। আর এই ভীষণ রকম ভালোবাসা থেকেই গানের জগতে পা রাখা তার। বলছি এই প্রজন্মের আলোচিত গীতিকবি রিপন মাহমুদের কথা।

একজন খ্যাতিমান গীতিকবি হবার একবুক স্বপ্ন নিয়ে ২০০৪-৫ সালের দিকে গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহ ছেড়ে ঢাকায় পারি জমান স্বপ্নবাজ এই তরুণ। ঢাকা আসার পর দেশবরেণ্য গীতিকার, সুরকার মিল্টন খন্দকার এর সান্নিধ্য লাভ করেন তিনি। এরপর শুরু করেন গীতিকাব্য চর্চাকেন্দ্রে আসা যাওয়া। এক কথায় মিল্টন খন্দকারের হাতেই গীতিকার হিসেবে রিপন মাহমুদ এর হাতেখড়ি। আর এভাবেই ধীরেধীরে সঙ্গীত জগতে একজন গীতিকার হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন রিপন মাহমুদ। 

সঙ্গীত জীবনের এই দীর্ঘ পথচলায় গানের সংখ্যা কম হলেও বেশকিছু শ্রোতাপ্রিয় গান উপহার দিয়ে নিজের লেখনীর সামর্থ্য দেখিয়েছেন তিনি। তার গীতিকথায় বেলাল খান, কাজী শুভ, ইমন খান, আকাশ মাহমুদ, প্রিন্স হাবীব, মন্টি সিনহা, কামরুজ্জামান রাব্বী, রাজীব দাস, মোহনা ইতি, আসিফ ইমরান, সুজন আহমেদ সহ এই প্রজন্মের আরো অনেকেই গান গেয়েছেন। 

“যদি এক দেহেতে দুইজনারে দিতো বিধি দম” এক রশিতে আত্বহত্যার ভিডিওসহ ভাইরাল এই গানটি দিয়ে বেশ আলোচনায় আসেন তিনি। তাছাড়া সম্প্রতি প্রকাশিত হওয়া প্রবাসীদের নিয়ে “টাকার মেশিন” শিরোনামের একটি গান দিয়ে খুব প্রশংসিত হয়েছেন তিনি। এই গান দিয়ে শুধু মাত্র টিকটক এ্যাপেই ৫০০০ ভিডিও রয়েছে যা টিকটকের রেকর্ড। বর্তমানে মনির খান, আকাশ সেন, কাজী শুভ, ফজলুর রহমান বাবু, অবন্তী সিঁথী, আরমান (মীরাক্কেলীয়ান), নিলয়, উদয় (ক্ষুদে গানরাজ) মারিয়া আলম সহ আরও বেশকিছু জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পীর গানের কাজ চলছে।

আরো পড়ুন: মেধা এবং যোগ্যতার প্রমাণ দিয়ে এগিয়ে যেতে চাই- রবিউল ইসলাম রবি

এরমাঝে বেশকিছু গানের মিউজিক ভিডিওর চিত্রায়ণের কাজও শেষ হয়েছে। যেগুলো প্রকাশের অপেক্ষায় রয়েছে। এছাড়া একুশে টেলিভিশনে প্রচারিত সোহেল তালুকদারের পরিচালনায় ধারাবাহিক নাটক “ভ্যাজাইল্লা গ্রাম” এর থিমসং, চ্যানেল নাইনে প্রচারিত জ্বি স্বাধীনের পরিচালনায় “পন্ডিতের আখড়া” এর টাইটেল সং সহ আরও বেশকিছু নাটকের টাইটেল সং এর কাজ চলমান। 

যেগুলো খুব শীগ্রই প্রকাশ করা হবে বলে জানালেন তিনি। এরমধ্যে “প্রেমাতঙ্ক” নামে একটা নাটকও রয়েছে। গানের পাশাপাশি একটি প্রাইভেট কোম্পানিতে চাকরি করেন রিপন মাহমুদ। অফিস টাইম শেষে পুরোটা সময়জুড়ে গানের পেছনেই সময় দেন তিনি। তার ধ্যানে জ্ঞানে শুধুই এগিয়ে যাওয়ার বাসনা।

আরো পড়ুন: সুস্থ ধারার সঙ্গীত ফিরিয়ে আনতে কাজ করে যেতে চান কন্ঠশিল্পী বিপ্লব

নিজের পথচলা নিয়ে রিপন মাহমুদ বললেন – মানুষ বাঁচে তার কর্মে, আমি সৃষ্টিশীল কর্মে মানুষের হৃদয়ে বেঁচে থাকতে চাই। তাই মিল্টন খন্দকার স্যারের নির্দেশনার পাশাপাশি আরেক খ্যাতিমান গীতিকবি মোহাম্মদ রফিকউজ্জামান স্যারের কাছে “আধুনিক বাংলাগান রচনাকৌশল ও শুদ্ধতা” র উপর চর্চা করছি। আমি বিশ্বাস করি “পরিশ্রম কখনো বৃথা যায়না” মানুষ অকৃতজ্ঞ হলেও সময় ঠিক-ই তার উপযুক্ত প্রাপ্তি দিবে। তাছাড়া শুধু গান নয় জীবনের প্রতিটি স্তরেই বাধা-বিপত্তি, সফলতা-বিফলতা থাকবেই। সুতরাং নিজের কাজের প্রতি আত্ববিশ্বাস রাখতে হবে আর অবশ্যই চর্চা করতে হবে। আমি স্বপ্ন দেখি আমার কাজের মাধ্যমেই একদিন আমি অনেকের প্রিয় হয়ে উঠবো। সবাই দোয়া করবেন।

একটিভ নিউজ