×
  • ঢাকা
  • সোমবার, ১৭ মে, ২০২১, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

ফিনিক্স পাখির মাতোই জেগে উঠেছে বিএনপি: ফখরুল


একটিভ নিউজ প্রকাশিত: এপ্রিল ১৭, ২০২১, ০৪:৩৮ পিএম ফিনিক্স পাখির মাতোই জেগে উঠেছে বিএনপি: ফখরুল
সংগৃহীত

সরকারবিরোধী বৃহত্তর রাজনৈতিক জোট তৈরি করতে যাচ্ছে বিএনপি নতুন-পুরনো বিভিন্ন দল ও সংগঠনের সঙ্গে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে। এমন তথ্য জানিয়ে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন যে, ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনেই দাবি আদায় করা হবে। সংকটময় পরিস্থিতিতেও বিএনপি টিকে রয়েছে মন্তব্য করে মির্জা ফখরুল বলেন, বিএনপি জনগণের কথা বলে বলেই দলটিকে নিঃশেষ করা সম্ভব নয়।

দীর্ঘদিন ঝিমিয়ে থাকার পর স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে গত মাসে হঠাৎ করেই রাজপথে সরগরম হয়ে ওঠে বিএনপি। একের পর এক রাজনৈতিক কর্মসূচি দিয়ে আন্দোলনে ফেরার আভাস দেয় দলটি।

আরো পড়ুন: করোনা আক্রান্ত খালেদার বাসায় দুই চিকিৎসক-টেকনোলজিস্ট

তবে করোনার প্রকোপের সাথে সাথে আবারো ঘরোয়া কর্মসূচিতে ফিরে যায় বিএনপি। দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলছেন, এ পরিস্থিতিতেও সরকারবিরোধী নতুন জোট গোছানোর কাজ চলছে পুরোদমে।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর আরো বলেন, গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের জন্য আমরা আমাদের দলকে সংগঠিত করছি। অন্য দলেগুলোর সঙ্গে কথা বলা হচ্ছে এবং একটা ঐক্যের, জাতীয় ঐক্য সার্বিকভাবে জণগণের ঐক্য তৈরি করে আমরা এ অবস্থার-পরিস্থিতির অবসান ঘটাতে চাই। আমাদের শুধু ঐক্যফ্রন্ট না, ২০ দল ছিল, আছে এখনো। আমরা সবার সঙ্গে কথা বলছি। কীভাবে আরো বৃহত্তর ঐক্য গড়ে তোলা যায় সে বিষয়ে।   

বিএনপিবিরোধী নানা তৎপরতার অভিযোগ তুলে দলীয় মহাসচিব বলেন, কোনো ষড়যন্ত্রই দলটিকে থামিয়ে রাখতে পারবে না।

আরো পড়ুন: ‘হেফাজতের উপর চাপানো সুস্পষ্ট অন্যায়’

গণমাধ্যমকে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘বিএনপি হচ্ছে জনগণের দল। এর রাজনীতি সঙ্গে বাংলাদেশের মানুষের আত্মার সম্পর্ক রয়েছে। যারা সত্যিকার অর্থে স্বাধীন বাংলাদেশ-সার্বভৌম বাংলাদেশ, গণতান্ত্রিক বাংলাদেশে বিশ্বাস করে তাদের দল হচ্ছে বিএনপি। আর সে কারণে কখনোই বিএনপিকে নি:শেষ করা সম্ভব হয়নি, বারবার চেষ্টা করা হয়েছে কিন্তু কখনোই শেষ করতে পারেনি। ফিনিক্স পাখির মতোই বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল জেগে উঠেছে।’             

জাতীয় ঐক্য গড়ে তোলার পাশাপাশি দলের সাংগঠনিক শৃঙ্খলা ও শক্তি বাড়ানোর কাজ চলছে বলেও জানান মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
 

সাইফুল বারী / একটিভ নিউজ